বৃহস্পতিবার, জুন ২০, ২০২৪
Led05রাজনীতি

অবরোধের প্রথম দিনে নগরে ঠান্ডা, আড়াইহাজার উত্তপ্ত: কঠোর অবস্থানে আওয়ামী লীগ

#যারা অশান্তি ঘটায় তাদের মানুষ প্রত্যাখ্যান করেছে: ভিপি বাদল
#রাজনীতির নামে মানুষের ক্ষতি করছে, আমরা জনগণকে নিয়ে প্রতিহত করবো: খোকন সাহা
#মানুষ বিএনপিকে ছিঃ ছিঃ করছে: শাহ নিজাম

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: বিএনপি ও জামায়াতে ইসলামীর ৩দিনের অবরোধের প্রথম দিন সকাল থেকে নারায়ণগঞ্জে শহর এলাকার পরিস্থিতি শান্ত। তবে যান চলাচল কম। অবরোধের সমর্থনে বিএনপি-জামায়াতের নেতাকর্মীদের কোনো কর্মসূচির দেখা না মিললেও কঠোর অবস্থানে প্রস্তুত ছিলো আওয়ামী লীগ। অন্যদিকে সকাল থেকেই আড়াইহাজার উপজেলায় বিএনপি-পুলিশ সংঘর্ষে রণক্ষেত্র। এতে পুলিশ সদস্যসহ প্রায় অর্ধশতাধিক নেতাকর্মী আহত হয়েছে।

বিএনপি-জামায়াতের নগরীর অবরোধকে কেন্দ্র করে ‘জনগণের জানমাল রক্ষা ও জনজীবনের নিরাপত্তায়’ আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা ফজরের নামাজের পর থেকেই বিভিন্ন এলাকায় অবস্থান নিয়েছেন। এ সময় ‘অবৈধ অবরোধ মানিনা মানবো না’ স্লোগানে মানুষের জান মাল রক্ষার জন্য শহরে প্রবেশপথ সাইনবোর্ড, নারায়ণগঞ্জ মহানগরের ২৩ নম্বর ওয়ার্ড, মহানগর যুবলীগের সভাপতি শাহাদাত হোসেন সাজনুর নেতৃত্বে মানুষের জানমাল রক্ষার্থে সকাল থেকে মূল শহরে অবস্থান, নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রিয়া সম্পাদক হুমায়ুন কবির মৃধার নেতৃত্বে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে মদনপুর এলাকায় সকাল থেকে মানুষের জানমাল রক্ষা ও পরিবহন ব্যবস্থা স্বাভাবিক রাখতে অবস্থান গ্রহণ, নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের সিদ্ধিরগঞ্জ থানার নেতৃবৃন্দ ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের সিমরাইল এলাকায় ও জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি সাফায়ত আলমসানির সহ সাবেক ছাত্রনেতারা দুই নম্বর রেলগেট দলীয় কার্যালয়ের সামনে সকাল থেকে অবস্থান নেন।

অবস্থানের বিষয়ে নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এড. খোকন সাহা লাইভ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, আমরা সার্বক্ষণিক প্রস্তুত আছি। অপতৎপরতা, অপরাজনীতি ও মানুষের জানমাল রক্ষা করার জন্য বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সর্বদা সচেষ্ট। সর্বস্তরের নেতাকর্মী প্রস্তুত আছে। যদি কেউ রাজনীতির নামে, অপরাজনীতি ও মানুষের ক্ষতি করে আমরা সেটা জনগণকে নিয়ে প্রতিহত করবো।

নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শাহ নিজাম লাইভ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, আমরা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা ভোর থেকে নারায়ণগঞ্জের প্রতিটা স্থানেই অবস্থান নিয়েছি। যে অবস্থা এই অবরোধে বুঝলাম, পাবলিক ওদের (বিএনপি) প্রত্যাখান করেছে। তার প্রমান হলো একেবারে আগের মতো করেই গাড়ি চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে, রাস্তায় প্রচুর গাড়ির অবস্থান। এর মানে সাধারণ জনগণ এই অবরোধ মানেনি। অবৈধ, নৈরাজ্য, আগুন সন্ত্রাস ও হত্যার রাজনীতি পাবলিক সমর্থণ করেনি।

নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির সদস্য সচিব এড.মো. আবু আল ইউসুফ খান টিপু’র বক্তব্য ‘বিএনপি আগুন দেয় না,এগুলা আওয়ামী লীগের কাজ’। এই কথার পাল্টা জবাবে শাহ নিজাম বলেন, মিথ্যা কথা বলা বিএনপির রাজনীতির একটা অংশ। ইতোমধ্যে আমেরিকার প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন’র প্রতিনিধি বিএনপি কার্যলয়ে বসিয়ে মানুষকে বিভ্রান্তি করার চেষ্টা করেছেন। এর চেয়ে বড় আর কি প্রমাণ থাকতে পারে ওরা (বিএনপি) কি পরিমানের মিথ্যাবাদী। ওরা একটা পুলিশকে কিভাবে হত্যা করেছে, শুধু হত্যা করেই খান্ত হয়নি, হত্যার পরেও বার বার আক্রমণ করা হয়েছে লাশের উপর। ওরা চেষ্টা করেছে লাশটি পুড়িয়ে দেয়ার, তাহলে বুঝায় যায় ওরা কতটা নৃশংসতার রাজনীতি করে। জ্বালাও পোড়াও উপরে ওদের বিশ্বাস, আর এটাই ওদের রাজনীতির চিন্তা চেতনা। বাংলাদেশের মানুষ এগুলা জেনে গেছে, তাই মানুষ ওদের এখন ছিঃ ছিঃ করছে।

নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এড. আবু হাসনাত মো শহিদ বাদল (ভিপি বাদল) লাইভ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, আজকে নারায়ণগঞ্জে কোন অবরোধ চলছে না। বাস, ট্রেন ও লঞ্চ সবই ঠিকঠাক চলছে। নারায়ণগঞ্জে মানুষ বিএনপি এই অবরোধ প্রত্যাখ্যান করেছে। মানুষ আসলে চায় শান্তি, তারা বেচেঁ থাকার অধিকার চায়। যারা অশান্তি ঘটায় তাদের মানুষ প্রত্যাখ্যান করেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

RSS
Follow by Email