শুক্রবার, জুন ১৪, ২০২৪
রাজনীতি

প্রোপাগান্ডা বন্ধ না হলে আইনি ব্যবস্থা: বিপ্লব সরকার

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: এক নিরিহ নারীর উপকার করতে গিয়ে আব্দুল আজিজগংদের আক্রোশের শিকার হয়েছেন এক মুক্তিযোদ্ধা ও আওয়ামী লীগ পরিবারের সন্তান বন্দর থানা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মো: বিপ্লব সরকার। ওই আব্দুল আজিজগংরা বর্তমানে বিপ্লব সরকারের বিরুদ্ধে নানা প্রোপাগান্ডা ছড়িয়ে তাকে সামাজিকভাবে হেয়প্রতিপন্ন করার ষড়যন্ত্র করছে বলে অভিযোগ করেছেন। যদি এ প্রোপাগান্ডা বন্ধ না হয় তাহলে তিনি আব্দুল আজিজগংদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা গ্রহন করবেন বলেও জানান।
সোমবার (৭ আগষ্ট) সকালে গণমাধ্যমে পাঠানো এক প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে তিনি এ অভিযোগ করেন।

প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে তিনি বলেন, আমি মো: বিপ্লব সরকার। আমার পিতা বীর মুক্তিযোদ্ধা আ: রউফ সরকার ছিলেন, বন্দর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান। আমার বাবা মহান স্বাধীনতাযুদ্ধ চলাকালিন সময়ে বন্দর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ছিলেন। আমার বড় ভাই মো: আব্দুল সাত্তার শামিম। তিনি বর্তমানে বন্দর উপজেলা আওয়ামীলীগের উপ দপ্তর সম্পাদক। আমার মেঝো ভাই শাহীন সরকার, ২নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি। আমরা একটি মুক্তিযোদ্ধো রাজনৈতিক পরিবারের সন্তান সত্বেও আমি ২০০৩ সাল হতে বন্দর থানা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করে আসছি।

তিনি বলেন, গত ২ মাস আগে আমার নিকট মুসলিম উদ্দিনের স্ত্রী রোকেয়া আমাকে জানায় যে, তাকে তার পৈত্রিক সম্পত্তি হইতে তার তিন চাচা আব্দুল মজিদ, আব্দুল আজিজ ও আব্দুল আউয়াল তার আপন বড় ভাই মো: গোলজার হোসেনের প্রাপ্য সম্পত্তির ন্যায্য হিসাব বুঝিয়ে দিচ্ছেনা। সে আমাকে আমাদের উপজেলা চেয়ারম্যান এমএ রশিদ সাহেবের কাছে তার এ সমস্যার কথা তুলে ধরতে বলেন। আমি চেয়ারম্যান সাহেবকে জানালে তিনি বলেন, যেহেতু আব্দুল আজিজ একজন মুক্তিযোদ্ধা এবং সমাজের সচেতন মানুষ, তাই তার বিরুদ্ধে কোন মামলা মোকাদ্দমা না করে আপোষ মিমাংসার মাধ্যমে সমাধানের লক্ষ্যে আব্দুল আজিজকে ফোন করে বিষয়টি সমাধানের অনুরোধ করেন। এবং আব্দুল আজিজ তার ভাতিজিদের সম্পত্তির ন্যায্য হিসাব বুঝিয়ে দিবেন বলে চেয়ারম্যান সাহেবকে আশস্ত করেন। কিন্তু আজ পর্যন্ত এতিম ভাতিজিদের সম্পত্তি বুঝিয়ে দেননি। সম্পত্তি বুঝিয়ে দেয়ার নামে তিনি তালবাহানা করে আসছেন। সে কারনে তিনি গত ২৭ মে জুলাই থেকে নারায়ণগঞ্জের বিভিন্ন স্থানীয় পত্র-পত্রিকায় আমাকে ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সাহেবকে জড়িয়ে বিভিন্ন প্রোপাগান্ডা ছড়াচ্ছেন। আমি এ সমস্ত প্রোপ্রাকান্ডার তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানাই। এবং ভবিষ্যতে আমাদের নিয়ে এ ধরনের প্রোপাগান্ডা ছড়ালে আব্দুল আজিজ গংদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে বাধ্য হবো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

RSS
Follow by Email