বুধবার, ফেব্রুয়ারি ২৮, ২০২৪
Led02রাজনীতি

বোমা ফাটাবেন আপনারা নাম দিবেন বিএনপির, এটা চলবে না: জয়নুল আবদীন

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য ও সাবেক চিফ হুইপ জয়নুল আবদীন ফারুক বলেছেন, আপনারা নাকি মুক্তিযুদ্ধের স্ব-পক্ষের লোক, আপনাদের লজ্জা হওয়া উচিত। মুক্তিযুদ্ধের ঘোষণা দিয়েছিলেন জিয়াউর রহমান। রাতের ভোটে আপনারা আর ক্ষমতায় আসতে পারবেন না। তাদের সন্ত্রাসী কার্যকলাপ আবার শুরু হয়েছে। গাড়িতে আগুন দিবেন আপনারা, বোমা ফাটাবেন আপনারা, চাইনিজ রাইফেল দিয়ে গুলি চালাবেন আপনারা; আর নাম দিবেন বিএনপির, এটা চলবে না।

একদফা দাবি বাস্তবায়নে শনিবার (২৬ আগস্ট) বিকেলে নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির কালো পতাকা গণমিছিল কর্মসূচিতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত হয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

কালো পতাকা গণমিছিলে মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক এড. সাখাওয়াত হোসেন খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন মহানগর বিএনপির সদস্য সচিব এড. আবু আল ইউসুফ খান টিপু।

বিএনপির আন্দোলনে জনগনের সমর্থণের কথা উল্লেখ করে জয়নুল আবদিন ফারুক বলেন, আমরা ১৪ বছর গুম, খুন, হামলা-মামলা সহ্য করেই এই পর্যন্ত এসেছি। দেশ আজ আওয়ামী লীগের হাতে বন্দি। তারা আজ বাংলাদেশের মানুষের সকল অধিকারকে হত্যা করেছে। যতেই অত্যাচার করুন না কেন, বাংলাদেশের মাটিতে এই আওয়ামী সন্ত্রাসদের এক দিনও ক্ষমতায় রাখতে চাই না। নারায়ণগঞ্জে বিএনপির নেতাকর্মীদের বিনা মামলায় গ্রেফতার করা শুরু করেছেন। তারেক রহমানের ১দফা দবির প্রতি বাংলাদেশের ৮৫ ভাগ মানুষের সমর্থন রয়েছে।

প্রধান অতিথি বলেন, যারা এখন আন্দোলন করছে, তাদের কথা কিন্তু স্মরণ রাখতে হবে। উড়ে এসে জুড়ে বসা যাবে না। এই নারায়ণগঞ্জে আসরের নামাজের আগে বিএনপি ক্ষমতায় আসবে, সে দিন বেশি দুরে নয়। অসুস্থতার নাম দিয়ে বিদেশে বসে যখন পদ আসবে, তখন পদের জন্য আসবেন; এটা হতে দেয়া হবে না। এড. শাখাওয়াতের নেতৃত্বে নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপি শক্তিশালি আছে।

তিনি আরও বলেন, আমার বাড়ি নোয়াখালি, সেখানে আছে একজন কাউয়া। উনি বলে, বিএনপি পাগল হয়ে গেছে, বিএনপি নাকি শোক র‌্যালি করতেছে। আরে কাউয়া সাহেব, এসব কথায় আর কোন লাভ হবে না, ক্ষমতা আপনাদের ছাড়তেই হবে। যতই লবিস্ট নিয়গ করেন, যতই বড় বড় কথা বলেন; আপনাদের কথায় আর কাজ হবে না। এই ভোট চরের অধিনে আর নির্বাচন করবো না। নির্বাচন হবে তত্বাবধায়ক সরকারের অধিনে।

এসময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- বিএনপির সহ-আন্তজার্তিক বিষয়ক সম্পাদক নজরুল ইসলাম আজাদ, বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য কাজী মনিরুজ্জামান মনির, মোস্তাফিজুর রহমান ভুইয়া দিপু, আজহারুল ইসলাম মান্নান।

RSS
Follow by Email