শুক্রবার, জুন ১৪, ২০২৪
Led02ফতুল্লারাজনীতি

মাদক-সন্ত্রাস আমাদের শেষ করতে হবে, পুলিশ দিয়ে হয় না: শামীম ওসমান

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: ফতুল্লার কুতুবপুর এলাকার বিভিন্ন উন্নয়ন মুলক কাজের পরিদর্শন করেছেন নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য শামীম ওসমান। এসময় তিনি স্থানীয় সাধারণ জনগনের সাথে কথা বলেন এবং সন্ত্রাস ও মাদক নির্মূলসহ বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা করেন। অনেকে এটা শামীম ওসমানের নির্বাচনী প্রচারণার শুরু হিসেবেও মনে করছেন।

শুক্রবার (১০ নভেম্বর) কুতুবপুর ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের বাইতুল আমান জামে মসজিদে জুম্মার নামাজের পর স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যাক্তিবর্গদের সাথে নিয়ে বিভিন্ন এলাকা পরিদর্শন শুরু করেন তিনি।

জুম্মার নামাজের শেষে সাংবাদিকদের তিনি বলেন, ‘গত ৫বছর আগে আমি যখন এখানে এসেছি, রিকশা তো দুরের কথা হেটেও ঠিক মতো যেতে পারি নাই। আজ পুরো রাস্তাটাই আরসিসি হয়ে গেছে। আমরা এটাই চাচ্ছি, যাতে ভালো মানুষ গুলোকে নিয়ে ভালো কাজ করতে পারি। মাদক, সন্ত্রাস আর কিশোর গ্যাং নির্মূলের জন্য আমি সকলের কাছে সহযোগীতা চেয়েছি এবং ওনারা (স্থানীয় জনগন) আমাকে কথা দিয়েছেন এই বিষয়ে আমার সহযোগীতা করবেন।’

তিনি বলেন, যে কারণে আমরা স্বাধীনতা পেয়েছি, ‘একটি উন্নত বাংলাদেশের জন্য। এটা আমরা অনেক আগেই পেতাম, যদি বঙ্গবন্ধু হত্যা না হতো। বাংলাদেশ বহু আগে জাপানের চেয়ে উন্নত দেশ হয়ে যেতো। আমরা আমাদের যৌবনে যেটা পাই নাই, এই ছোট ছোট বাচ্চা যারা আছে; তাদের একটি সুন্দর বাংলাদেশ দিতে চাই।’

বিএনপির হরতাল-অবরোধ কর্মসূচির বিষয়ে শামীম ওসমান বলেন, ‘বিএনপি যা করতেছে, আমরা মনে হয় সেটা তারা জানে না। এইযে মানুষকে পুড়িয়ে মারা, এই পাপের ক্ষমা ইহকালেও না পরকালেও না। কারো কিচ্ছু করতে হবে না, এরা এমনি এমনি ধ্বংস হয়ে যাবে।’

বাংলাদেশে যা হচ্ছে, ‘আমি তাদের একটাই অনুরোধ করবো; এটা থেকে বিরত থাকতে। বাসে আগুন দেয়া, মরা পুলিশ সদস্যকে কোপানো এটার নাম রাজনীতি হতে পারে না। এটা জঘন্য অপরাধ। আমার নিজের কাছে লজ্জা লাগে যে আমি একজন পলিটিশিয়ান।’

সন্ত্রাস ও মাদক নির্মূলের বিষয়ে প্রভাবশালী এই সংসদ সদস্য বলেন, বর্তমানে নারায়ণগঞ্জে বিভিন্ন উন্নয়ন মুলক কাজ হচ্ছে, যাতে করে নারায়ণগঞ্জের চেহারা পাল্টে যাবে। কিন্তু একটা জিনিস আমি একা পারবো না, সেটা হচ্ছে মাদক আর সন্ত্রাস নির্মূল করা। মাদকের কবলে কে কখন পরে যাচ্ছে বুঝা যায় না। এটা একটি সামাজিক সমস্যা, সারা পৃথিবীতেই আছে। আর এই সমস্যা আমাদেরই সমাধান করতে হবে, পুলিশ দিয়ে এটা হয় না। যার যার এলাকায় যদি আমরা দাঁড়িয়ে যাই, আমার বিশ্বাস এরা কিছুই করতে পারবে না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

RSS
Follow by Email