শনিবার, মে ২৫, ২০২৪
Led05রাজনীতিসোনারগাঁ

র‌্যাব পরিচয়ে ছিনতাইয়ের ঘটনায় গ্রেপ্তার সাবেক ছাত্রলীগ নেতারা রিমান্ডে

 

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: র‌্যাব পরিচয়ে মোবাইল ছিনতাই করতে গিয়ে গ্রেপ্তার সোনারগাঁ পৌরসভা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মাহাবুবুর রহমান রবিন ও সাধারণ সম্পাদক শাহরিয়ার হাসান খান সাজুকে রিমান্ডে নেওয়া হয়েছে।

নারায়ণগঞ্জের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ইমরান মোল্লার আদালত সোমবার (২৫ সেপ্টেম্বর) জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রিমাণ্ডে নেওয়ার নির্দেশ দেন।

এর আগে দুপুরে ১০ দিনের রিমান্ড পেয়ে আদালতে উঠায় পুলিশ। শুনানী শেষে এক দিনের রিমাণ্ড মঞ্জুর করা হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে আদালত পুলিশের পরিদর্শক মো. আসাদুজ্জামান বলেন, আসামিদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করে সোনারগাঁ থানা পুলিশ। আদালত শুনানি শেষে ১ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

গত ১৩ সেপ্টেম্বর উপজেলার মোগরাপাড়া এলাকায় প্রাইভেটকারে যাওয়ার সময় ‘আইনশৃঙ্খলা বাহিনী পরিচয়ে’ দুই সহযোগীকে নিয়ে রাজধানীর একটি মার্কেটের মোবাইল ফোন ব্যবসায়ী ও মামলার বাদী সুমনের গাড়ি থামিয়ে ২৮৩টি মোবাইল ছিনতাই করে ছাত্রলীগের এই দুই নেতা। পরে তিনি সোনারগাঁ থানায় ছাত্রলীগের দুই নেতার নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত আরও দুইজনকে আসামি করে মামলা করলে রোববার রাতে পুলিশ অভিযান চালিয়ে দুইজনকে গ্রেপ্তার করে।

সোনারগাঁ থানার ওসি মাহবুব আলম বলেন, ব়্যাব পরিচয়ে ছিনতাইয়ের অভিযোগে করা মামলায় রোববার দিবাগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে রবিন ও সাজুকে গ্রেপ্তার করা হয়৷

এর আগেও ২০১৯ সালে সোনারগাঁয়ের চৈতি কম্পোজিটের ১৬৬ বস্তা কাপড়সহ একটি ট্রাক ডাকাতির অভিযোগে গ্রেপ্তার হয়েছিল পৌরসভা সাধারণ সম্পাদক শাহারিয়ার হাসান খাঁন সাজু। এ ঘটনায় সে বছরের ১৮ জানুয়ারি তাকে দল থেকে বহিস্কার করেছে উপজেলা ছাত্রলীগ। এছাড়া দলীয় শৃঙ্গলা পরিপন্থী কার্যকলাপের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে ২০২১ সালের ১১ জুলাই সোনারগাঁ পৌরসভা ছাত্রলীগের সভাপতি পদ থেকে মাহবুবুর রহমান রবিনকে অব্যাহতি দেওয়া হয়।

সোনারগাঁ উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রাশেদুল ইসলাম রাসেল বলেন, ‘ছাত্রলীগের মতো একটি সংগঠনের সাথে জড়িত থেকে এসব কর্মকান্ড করায় আমরা বিব্রত৷ রবিন ও সাজুর বিরুদ্ধে নানা অপরাধমূলক কর্মকান্ডের অভিযোগ আগে থেকেই ছিল৷ আগেও দুইজন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে গ্রেপ্তার হয়েছে৷ ছিনতাইয়ের মামলায় আমরা তাদের গ্রেপ্তারের খবর শুনেছি৷ আমরা জেলা ছাত্রলীগ ও কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দের সাথে যোগাযোগ করেছি৷ তারা সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেবেন।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

RSS
Follow by Email