শুক্রবার, জুন ২১, ২০২৪
Uncategorized

আ.লীগ বন ও পরিবেশ বিষয়ক উপকমিটির সদস্য হলেন আড়াইহাজারের জামাল

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক কেন্দ্রীয় উপকমিটির সদস্যপদ লাভ করলেন বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের (৬ষ্ঠ কংগ্রেস) সাবেক সদস্য ও নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলার খাগকান্দা ইউনিয়ন যুবলীগের ২০০২ ইং সাল থেকে টানা ১৪ বছর সভাপতির দায়িত্ব পালন করা এস এম আতাহার জামাল। বুধবার (৪ অক্টোবর) দলীয় সভাপতি, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশক্রমে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এ উপকমিটির অনুমোদন দেন।

এক সময়ের রাজপথ কাঁপানো ছাত্রনেতা এস এম আতাহার জামাল ঢাকা কলেজ ছাত্রলীগ শাখার (অলোক-মিজান) শিক্ষা ও সংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। পরবর্তীতে আড়াইহাজার উপজেলা আওয়ামী যুবলীগ ও নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী যুবলীগের নির্বাহী সদস্য হিসেবেও গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেন। এ দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে অন্যায়ভাবে স্বপরিবারে ১০-১২ টি মিথ্যা মামলায় (২০০১-২০০৮) জেলজুলুমেরও শিকার হতে হয়েছে এস এম আতাহার জামালকে। অন্যায়ভাবে জেলজুলুমের পরেও দলের প্রতি দায়িত্ব পালনে কখনো পিছপা হননি তিনি। তিনি ২০২০ ইং সালের ৩০ জানুয়ারি ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নুর তাপস এর নির্বাচনে ঢাকা-০৫ সংসদীয় আসন ডেমরা থানা (ওয়ার্ড ৬৬,৬৭,৬৮,৬৯ ও ৭০) কেন্দ্রীয় যুবলীগ কর্তৃক সমন্বয়কের দায়িত্বও পালন করেন।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক কেন্দ্রীয় উপকমিটির সদস্যপদ লাভ করায় দলীয় সভাপতি শেখ হাসিনা সহ দলের সকল নেতৃবৃন্দকে কৃতজ্ঞতা জানিয়ে আওয়ামী পরিবারের সন্তান এস এম আতাহার জামাল বলেন, আমার নেত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা দেশরত্ন শেখ হাসিনার প্রতি আমার আস্থা অবিচল। তিনি আমার যথাযথ মূল্যায়ন করেছেন। ২০০১ সালে মরহুম জিয়াউর রহমানের মৃত্যুবার্ষিকীর দিনে গোলযোগ লাগানোর মিথ্যা মামলায় আমাকে কারাবরণ করতে হয়েছিলো। ২০০২ সালে তৎকালীন চারদলীয় ঐক্যজোট তথা জামাত-বিএনপির সন্ত্রাসীরা আমার বসতবাড়ী থেকে ৬৯ টি গাছ কেটে নিয়ে যায়।
নয়নাবাদ ফজলুল করিম মাহমুদিয়া মহিলা মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি শিক্ষানুরাগী এই নেতা আওয়ামী লীগ ও তার অঙ্গ সংগঠনের সকল নেতাকর্মিকে ধন্যবাদ জানিয়ে আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার উদাত্ত আহ্বান জানিয়ে বলেন, ‘বর্তমান সময়ের বৈশ্বিক প্রেক্ষাপটে বাংলাদেশের জন্য আওয়ামী লীগ ও শেখ হাসিনার কোনই বিকল্প নেই। উন্নয়নের মহাসড়কে ডিজিটাল বাংলাদেশ থেকে স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার অভিযানে আমাদের সকলকে একযোগে কাজ করে বর্তমান সরকারের ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে হবে। মনে রাখতে হবে একটি ভংগুর অর্থনীতির বাংলাদেশকে আমাদের জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ডিজিটাল বাংলাদেশে বদলে দিয়েছেন। এজন্য আমাদের অবশ্যই তাঁর প্রতি কৃতজ্ঞ থাকতে হবে। নতুন প্রজন্ম বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার কার্যক্রম প্রত্যক্ষভাবে অবলোকন করছে। আগামীর স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে নতুন এ প্রজন্ম আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অবশ্যই বাংলাদেশ আওয়ামী লীগকেই বেছে নিবে তাদের প্রথম ভোটাধিকার প্রয়োগের মাধ্যমে।

মেসার্স আরহাম ট্রেডার্স, মেসার্স আলভি-আনান ট্রেড ইন্ট্যারন্যাশনাল ও সার্ভিং বিডি ডট কম এর স্বত্ত্বাধিকারী এস এম আতাহার জামাল বাংলাদেশ এগ্রা প্রসেসরস অ্যাসোসিয়েশন ও বাংলাদেশ ফ্রন্টস ভেজিটেবল এন্ড এলাইড প্রোডাক্টস এক্সপোটার্স অ্যাসোসিয়েশন (বিএফভিএপিইএ) এর সদস্য হিসেবেও যুক্ত থেকে নিজ এলাকাসহ সারাদেশের বিভিন্ন মসজিদ ও মাদ্রাসার উন্নয়নে ব্যাপক ভূমিকা রেখে চলেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

RSS
Follow by Email