শনিবার, ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০২৪
Led01জেলাজুড়েরাজনীতি

উন্নয়নের বার্তা নিয়ে এলাকা চষে বেড়াচ্ছেন আ.লীগ-জাপা, বিএনপি ব্যস্ত আন্দোলনে

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন পেতে এলাকা চষে বেড়াচ্ছেন নারায়ণগঞ্জের মনোনয়ন প্রত্যাশীরা। তৃণমূলে নেতাকর্মীদের সঙ্গে যোগাযোগ বাড়াচ্ছেন। অংশ নিচ্ছেন উঠান বৈঠক, মতবিনিময় ও দলীয় সভা-সমাবেশে। তুলে ধরছেন সরকারের উন্নয়ন ও নিজেদের ব্যক্তিগত অবস্থান।

সে যাত্রায় রয়েছেন, এমপি-মন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের নেতারা।

শেখ হাসিনার উন্নয়ন আর ভোটের বার্তা নিয়ে এখন এলাকামুখী তারা। তৃণমূল নেতাকর্মীদের মন জয়ের চেষ্টা করছেন। নিজ নিজ নির্বাচনি এলাকায় সময় দিয়ে তৃণমূলের সঙ্গে দূরত্ব কমিয়ে নিয়ে আসছেন।

নির্বাচনের আর মাত্র ৩ মাস বাকি। নির্বাচন সামনে রেখে তৃণমূলে জমে উঠেছে আওয়ামী লীগের রাজনীতি। ফুসরত পেলেই ছুটছেন এলাকায়। দুই থেকে তিন দিন সময় দিচ্ছেন কেউ কেউ। উদ্দেশ্য আগেভাগেই ভোটের মাঠে নিজের অবস্থান পাকাপোক্ত করা।

জানা গেছে, দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকার মনোনয়ন নিশ্চিত করতে নিজ নির্বাচনি এলাকায় এমন সব আয়োজন। ইতোমধ্যেই নারায়ণগঞ্জ-১ আসনে বর্তমান সংসদ সদস্য ও বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী গোলাম দস্তগীর কাজী প্রায়ই নানা অনুষ্ঠানে অংশ নিচ্ছেন। একই ভাবে স্কুল-কলেজের নবীন বরণ, হেলিকাপ্টার সার্ভিসসহ নানা অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে মানুষের কাছে পৌঁছাতে চাইছেন ২ আসনের সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম বাবু। ৩ আসনের জাতীয়পার্টির সংসদ সদস্য লিয়াকত হোসেন খোকাও আওয়ামী লীগের উন্নয়নের কথা তুলে ধরছেন, যাচ্ছেন স্কুল কলেজের অনুষ্ঠানে। শেষ মুহুর্তে উদ্বোধন করছেন ব্রীজ-কালভার্ড। আর নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য শামীম ওসমানতো নির্বাচনকে সামনে রেখে আওয়ামী লীগের হাতকে শক্তিশালী করতে বিশাল জনসভার আয়োজনই করেছেন। এর আগেও তিনি প্রতিদিনই কোনাকোন সামাজিক অনুষ্ঠানে অংশ নিয়েছেন।

আর ৫ আসনের সংসদ সদস্য ও জাতীয়পার্টির এমপি সেলিম ওসমান সময় পেলেই ছুটে যাচ্ছেন বন্দরে। ইতোমধ্যে তিনি আবারও নির্বাচন করার ঘোষণাও দিয়েছেন।

এছাড়া দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে দলীয় আলোচনা সভায় অংশ নিয়ে ৫টি আসনেই নৌকা চাইছেন নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুল হাই, নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেন, আওয়ামী লীগ নেতা আনিছুর রহমান দিপু, সাবেক সংসদ সদস্য কায়সার হাসনাতসহ অনেকেই। একাদশ জাতীয় নির্বাচনে নৌকার মনোনয়ন থেকে বঞ্চিত হয়েছিলেন তারা।

এদিকে, বিএনপি ব্যস্ত সময় পাড় করছেন দলীয় কর্মসূচিতে। তাদের একটিই দাবি আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন সরকারের পদত্যাগ ও সংসদ বিলুপ্ত করে নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন করা।

দাবিটি নিয়ে গত কয়েক মাস যাবত তারা টানা কর্মসূচি পালন করে চলেছে। কখনো একত্রে কর্মসূচি পালন করছে জেলা ও মহানগর বিএনপি। কখনো আবার হচ্ছে পৃথক পৃথক ভাবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

RSS
Follow by Email