শনিবার, ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০২৪
ফতুল্লা

পিচ্চি মানিক হত্যায় আরও ১জন গ্রেপ্তার

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: চানমারীতে পিচ্চি মানিক নামে এক রড-সিমেন্ট ব্যবসায়ী হত্যার ঘটনায় আরও একজনকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব-১১। তাদের দাবি গ্রেপ্তারকৃত যুবক হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত। মঙ্গলবার (৮ আগস্ট) বরগুনা জেলার আমতলী থানার সোনাউটা এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

গ্রেপ্তারকৃত আসামির নাম তুহিন(২৫)। সে ফতুল্লার চাঁনমারী (মাউরাপট্টি) এলাকার মিজানের ছেলে। এর আগে নিহত ‘পিচ্চি মানিক’ এর স্ত্রী ডালিয়া বেগম বাদী হয়ে ফতুল্লা মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

মামলায় উল্লেখিত আসামিরা হলো, মো. দাউদ (৫৫), মো. শরীফ (৩৫), আরিফ (২৯), সজিব (২৭), শান্ত ওরফে ইয়াকুব আলী (২৩), নাঈম (২১), তুহিন (২৫), জিসান (২০), জুয়েল (২০) এবং অজ্ঞাতনামা ৬/৭ জন।

র‌্যাব-১১ সিনিয়র সহকারী পরিচালক (সিনিয়র এএসপি) মো. রিজওয়ান সাঈদ জিকু এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানান, ভিকটিম ‘পিচ্চি মানিক’ এর সাথে আসামীদের সঙ্গে নানা বিষয়ে পূর্বশত্রুতা ছিল। গত ২৪ জুলাই রাত ৮টায় ভিকটিম তাঁর বন্ধুদের সঙ্গে চানমারীর সেকশন বাড়ির উদ্দেশ্যে বের হন। আনুমানিক রাত পৌনে ৯টায় চানমারী মাউরাপট্টি দোতলা গার্মেন্টস সংলগ্ন গ্রেপ্তারকৃত ১ নং আসামী মো. শরীফের গ্যারেজের সামনে পৌঁছালে আসামী শরীফ পিচ্চি মানিককে সালিশের কথা বলে কৌশলে নিজের গ্যারেজের ভিতর নিয়ে যায়। পরবর্তীতে আসামী তুহিনসহ সঙ্গীয় অন্যান্য আসামীদের সহায়তায় হাত-পা বেঁধে ধারালো চাপাতি, ছোড়া, চাকু ও অন্যান্য দেশীয় অস্ত্রদ্বারা কোপাতে থাকে। এ সময় তাঁর চিৎকার শুনে বন্ধুরা এগিয়ে গেলে তাঁদেরও কুপিয়ে আহত করে। ঘটনাস্থলে ভিকটিমের মৃত্যু নিশ্চিত করে আসামীরা পালিয়ে যায়। পরে ভিকটিমকে উদ্ধার করে খানপুর ৩০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

তিনি আরও জানান, এরই ধারাবাহিকতায় গোপন সূত্রে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে র‌্যাব-১১ ৮ আগষ্ট বরগুনা জেলার আমতলী থানার সোনাউটা এলাকা থেকে তুহিনকে গ্রেপ্তার করে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেপ্তারকৃত আসামী বর্ণিত হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত বলে স্বীকার করে। পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য ফতুল্লা থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

RSS
Follow by Email