মঙ্গলবার, এপ্রিল ২৩, ২০২৪
Led05জেলাজুড়েবিশেষ প্রতিবেদনরূপগঞ্জ

বাণিজ্য মেলার সময় বাড়াতে ব্যবসায়ীদের ধর্মঘট কর্মসূচি

রূপগঞ্জ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: কর্মব্যস্ত দিনে লোকসমাগম কম হলেও সরকারী ছুটির দিনই বাণিয্য মেলায় থাকে ক্রেতা-দর্শনার্থীদের উপচে পড়া ভিড়। ২০ ফেব্রুয়ারী মেলার পর্দা নামবে বলে ঘোষনা হওয়ায় ফুসে ওঠেছেন ব্যবসায়ীরা। ৩ দিন সময় বাড়ানোর দাবীতে ধর্মঘটের ডাক দিয়েছেন তারা।

শনিবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) সরেজমিনে দেখা যায় এমন দৃশ্য। মেলার ২৮তম দিন সাপ্তাহিক ছুটির শেষ শনিবার অন্যান্য দিনের তুলনায় লোকসমাগম অনেক বেশি। সকাল ১০ টা থেকে থেকে বিকাল পর্যন্ত মেলায় প্রায় ৬০ হাজার ক্রেতা দর্শনার্থী প্রবেশ করেছেন বলে জানিয়েছেন প্রবেশদ্বার কর্মকর্তা আব্দুল আজিজ। তবেমেলায় পুরুষের চেয়ে নারী ক্রেতা দর্শনার্থীর সংখ্যা বেশি।

এবারে মেলায় গৃহস্থালী সামগ্রী, বেডসিট, ভারতীয় চাদর, জুতা, অ্যালুমিনিয়াম, প্লাস্টিক, প্রসাধনী সামগ্রী, বিদেশি কার্পেট, হাতের তৈরি বিভিন্ন পণ্য, সুট ব্লেজার, ক্রোকারিজ, জুয়েলারি, ফার্নিচারের দোকানসহ সব স্টল ও প্যাভিলিয়নে ক্রেতার ভিড় দেখা গেছে। ব্যবসায়ীরা শেষের দিকে মেলায় আগত ক্রেতা-দর্শনার্থীদের আকৃষ্ট করতে ১০ থেকে ৫৩ শতাংশ ছাড় দিতে দেখা গেছে। সেই সুযোগে মেলায় আসা লোকজন কিছু না কিছু কিনে নিয়ে যাচ্ছেন। তবে শেষ মুহুর্তে বাকি কয়েকদিন বেচাকেনা বাড়বে বলে দাবি ব্যবসায়ীদের। এতে অন্যান্য দিনের চেয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন মেলার দোকানদাররা।

পিতলগঞ্জের বাসিন্দা ছাত্রলীগ নেতা আরিফ খান জয় বলেন, মেলায় প্রবেশের প্রধান সড়কে কিছুটা যানজটের কারণে অনেকটা ভোগান্তিতে পড়তে হয়েছে। তবে মেলার পরিবেশ অনেক ভালো।

এদিকে ২৮তম ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলার সময় আরও তিনদিন বাড়ানোর দাবিতে অবস্থান ধর্মঘট ও বিক্ষোভ কর্মসূচী পালন করেছে মেলায় অংশগ্রহনকারী ব্যবসায়ী সমিতি ও গেইট ইজারাদার কর্তৃপক্ষ। শনিবার দুপুরে আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলার প্রধান ফটকের সামনে ব্যবসায়ী সমিতির উদ্যোগে এই কর্মসূচি পালন করা হয়।

এসময় ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ বলেন, এবারের মেলা নানা প্রতিকূলতার মধ্য দিয়ে শুরু হওয়ায় লোকসানের সম্মুখীন হতে হচ্ছে তাদের।

কারন উল্লেখ্য করে তারা বলেন, এবার ১লা জানুয়ারির পরিবর্তে ২১ জানুয়ারি মেলা উদ্বোধন করা হয়।
মেলা শুরুর প্রথম শুক্রবার ২৬শে জানুয়ারি শুক্রবার ঢাকা ম্যারাথন থাকার কারণে ৩০০ ফিট রাস্তা বন্ধ রেখে অনুষ্ঠান করায় শুক্রবারের লোক সমাগম হয়নি। প্রতি বছর বাণিজ্য মেলা শেষ হবার পর অমর একুশে বইমেলা শুরু হয়। কিন্তু এ বছর বই মেলা না পিছিয়ে আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা শুরু হয়েছে যার কারণে লোকসমাগম একেবারেই কম হচ্ছে।
মেলা সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা ও রূপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মাসুম চৌধুরী অপু বলেন,
দুই দফায় বিশ্ব ইজতেমার কারণে মেলায় দর্শনার্থীদের আসতে সড়ক গুলোতে যানজটে রাস্তাঘাট বন্ধ হয়ে যায়। ভোগান্তির মুখে পড়েছে অনেকে রাস্তা থেকে ফিরে যান। এতে মেলার ব্যবসায়ীরা ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে।
উদ্বোধনের দিন থেকে অতিমাত্রায় শৈত্য প্রবাহের কারণে মেলার নির্মাণ কাজ সমাপ্ত করতে বিলম্ব হয়।

আবার ১৫ই ফেব্রুয়ারি এসএসসি পরীক্ষা শুরু হওয়ার কারণে লোকসমাগম চাহিদার চেয়ে কম হচ্ছে।
তাছাড়া, অব্যবস্থাপনার কারণে মেলার বাহিরে আরেকটি মেলা দৃশ্যমান হচ্ছে, যার কারণে আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলার আকর্ষণ কমছে। এজন্য তারা অনেকটা লোকসানের মুখে পড়েছেন। তাই সময় না বাড়ালে লোকসান গুনতে হবে ব্যবসায়ীদের।

আব্দুল্লাহ এন্টারপ্রাইজ স্বত্তাধিকারী সালাহউদ্দিন ভূঁইয়া বলেন, ইতোমধ্যে মেলায় অংশগ্রহণকারী ব্যবসায়ীগণ প্রধানমন্ত্রী, বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী, বানিজ্য সচিব, ইপিবির ভিসি ও সচিবের কাছে আরও তিনদিন বিনা ভাড়ায় মেলার সময় বাড়ানোর জন্য দাবি করেছেন। এর আগে কর্তৃপক্ষ আমাদের দাবি নাকচ করায় এই বিক্ষোভ কর্মসূচি করতে বাধ্য হয়েছি।

এদিকে ইপিবি সচীব বিবেক সরকার বলেন, ২৯ ফেব্রুয়ারিতে আন্তর্জাতিক ফার্মাসিউটিক্যাল মেলা হতে যাচ্ছে এখানে। সুতরাং মেলার সময় বাড়ানোর সুযোগ নেই। ইতোমধ্যে ২০ ফেব্রুয়ারি মেলার পর্দা নামানোর সব প্রস্তুতি হয়ে গেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

RSS
Follow by Email