শুক্রবার, জুন ২১, ২০২৪
Led01রাজনীতি

যারা নির্বাচন নিয়ে টেনশনে আছেন, তাদের বলছি কিচ্ছু হবে না: শামীম ওসমান

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: আগামী নির্বাচন নিয়ে যারা টেনশনে আছেন, তাদের বলছি কিচ্ছু হবে না। গ্যাস বেলুন যেমন ফুস করে ফুস হয়ে যায়, আমি বলে দিচ্ছি আস্তে করে ফুস হবে। ঠিক টাইম মতো নির্বাচন হবে। জাতির পিতার কন্যার আন্ডারে নির্বাচন হবে, এক চুল পরিমান এদিক ওদিক হবে না। জানুয়ারি মাসে নির্বাচন হবে। সুষ্ঠ সুন্দর ভাবে জনগণের ভোট নিয়ে শেখ হাসিনা আবার প্রধানমন্ত্রী হবেন।

নারায়ণগঞ্জের কালিরবাজারে শিল্পকলা একাডেমিতে শ্রমিকলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বৃহস্পতিবার (১২ অক্টোবর) সন্ধ্যায় আয়োজিত অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে এসব কথা বলেন তিনি।

দলের বিতরের নেতানেত্রীদের সমালোচনা করে শামীম ওসমান বলেন, নারায়ণগঞ্জের কত বড় বড় নেতা নেত্রী আছে। যখন নৌকা দরকার হয়, তখন নৌকার জন্য জান দিয়ে দেয়। এখনতো দেখতেছি না অনেকরে। জামাত বিএনপি, সুশিলদের বিরুদ্ধে গত ১ বছর, ২ বছরের মধ্যে দেখলাম না। নৌকাও নিলাম, গাড়িও নিলাম, পেপো করে গাড়িও চলে। যাক হয়তো ভবিষ্যতে করি। কারো বিরুদ্ধে কথা বলবো না, সবাই ভালো থাকুক, সুখে থাকুন।

এ সময় নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে শামীম ওসমান বলেন, ‘আপনারা সংগঠনটাকে সুন্দর করে গুছান। হাইব্রিড-টাইব্রিড নিয়েন না, যারা অরিজিনাল, সিএস, আরএস ও এসএ পর্চা আছে, তাদের নিয়েন। কম নেন, লোক কম হোক, কিন্তু সলিট হয় যেন।’

মাদক নিয়ে শামীম ওসমান বলেন, মক্কায় কাবা শরিফ ছুয়ে শপদ করে ছিলাম। টানবাজারের পতিতা পল্লি উচ্ছেদ করবো, সেটা উচ্ছেদ করতে পেড়েছি। কারণ, সেটা একটা নির্দিষ্ট জায়গায় ছিল। কিন্তু এবার যেটা ধরেছি, সেটা খুবই কঠিন। আমার বা পুলিশের পক্ষে একা মাদক বন্ধ করা সম্ভব না। যদি না আমরা সবাই মিলে এগিয়ে না আসেন। যারা মাদক বিক্রি করছে, সেতো ক্যারিয়ার, কিন্তু যে হোল সেলার সে হচ্ছে মূল। সে দেখবেন আমাদের মতো কারো পাশে এসে দাঁড়িয়ে আছে। সুন্দর করে বক্তিতা দিচ্ছে। বড় বড় এমপি মন্ত্রী, বিএনপির নেতা কিংবা সাংবাদিক সেজে বসে আছে। টুপি পড়ে মসজিদে গিয়ে নামাজ পড়তাছে। মানুষ মনে করছে, বাহ্ কত ভালো মানুষ।

তিনি আরও বলেন, এই উন্নয়ন করে কি হবে, যদি না আগামী প্রজন্মকে বাঁচানোর জন্য আমরা এগিয়ে আসতে না পারি। তাহলে হলে যা কিছু করছেন, সব ধ্বংস হয়ে যাবে মাদকের জন্য। মাদক একটা পরিবারকে ধ্বংস করে দেয়। মাদক মায়ের চোখের সামনে সন্তানকে নষ্ট করে ফেলে।

মাদক বন্ধ করতে সাংবাদিকসহ সকল ধরণের রাজনৈতিক নেতার কাছে যাবেন শামীম ওসমান। সকলকে ডেকে ও চিঠি দিয়ে সাহায্য চাবেন।

শামীম ওসমান বলেন, ‘তারা আসবে কি আসবে না, সেটা তাদের ব্যাপার। এরপর আমরা মাঠে নামবো। ভোট ফোটের আমি চিন্তা করি না, ভোট করবো কি না, তাও জানি না। ভোট কি, কালকে বাঁচি কিনা ঠিক নাই। আমি মৃত্যুর সময় ভয় পেতে চাই না। মরার সময় খুশি মনে যেতে চাই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

RSS
Follow by Email