রবিবার, মে ২৬, ২০২৪
জেলাজুড়েরাজনীতি

শিক্ষা সংস্কৃতিতে ইসলাম থাকলে অপরাধ হতো না: শায়েখ চরমোনাই

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: চরমোনাই শায়েখ মুফতি সৈয়দ মুহাম্মাদ ফয়জুল করীম বলেন, ইসলামের সূচনায় পড়ার কথা বলা হয়েছে। শিক্ষা সংস্কৃতিতে ইসলাম থাকলে চুরি, ডাকাতি, রাহাজানি, দুর্নীতি, ব্যাংক ডাকাতি ও রাষ্ট্রীয় সম্পদ বিদেশে পাচার হতো না। বাংলাদেশে যদি ইসলামকে প্রতিষ্ঠা করা যায় তবে এদেশে ৭০ গুণ উন্নয়ন হবে।

বৃহস্পতিবার (১ ফেব্রুয়ারি) বিকালে চিটাগাংরোড গ্রীন গার্ডেন পার্টি সেন্টারে মহানগর ইসলামী ছাত্র আন্দোলনের নগর সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

এসময় তিনি আরও বলেন, আন্তর্জাতিকভাবে সহযোগিতা ছাড়াও আফগানিস্তানে উন্নয়ন হচ্ছে। আমাদের দেশে সেরকম প্রত্যাশিত উন্নয়ন ও অগ্রগতি আমরা দেখতে পাচ্ছিনা কেবলমাত্র দুর্নীতির কারণে। নতুন শিক্ষা ব্যবস্থার মাধ্যমে ছাত্র সমাজ কে নাস্তিক বানানোর পায়তারা করছে সরকার। ধর্মীয় শিক্ষা ছাড়া ইসলাম চলতে পারে না। পশ্চিমারা জানে জন্ম গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নয়, মূল হচ্ছে শিক্ষা ও সংস্কৃতি। শিক্ষা সংস্কৃতি পরিবর্তন করা গেলে সবকিছু পরিবর্তন করা সম্ভব হবে। এজন্য মুসলমানদের বিরোধীরা শিক্ষা নিয়ে ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছে।

মুফতি ফয়জুল করীম বলেন, ইসলামের সূচনায় পড়ার কথা বলা হয়েছে। শিক্ষা সংস্কৃতিতে ইসলাম থাকলে চুরি, ডাকাতি, রাহাজানি, দুর্নীতি, ব্যাংক ডাকাতি ও রাষ্ট্রীয় সম্পদ বিদেশে পাচার হতো না। বাংলাদেশে যদি ইসলামকে প্রতিষ্ঠা করা যায় তবে এদেশে ৭০ গুণ উন্নয়ন হবে। বাংলাদেশে মানুষের খনি হলেও মানবসম্পদকে যথাযথভাবে প্রস্তুত না করার কারণে মানুষ সম্পদের পরিবর্তে আজ বোঝায় পরিণত হয়েছে।

সম্মেলনে মুহাম্মাদ ওমর ফারুক সভাপতি, এইচ এম শাহীন আদনান সহ-সভাপতি এবং মুহাম্মাদ আবুল হাশেম সাধারণ সম্পাদক করে নারায়ণগঞ্জ মহানগর এর ২০২৪ সেশনের কমিটি ঘোষণা করা হয়।

এসময় নগর সভাপতি মুহাম্মাদ মেহেদী হাসান এর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক এইচ এম শাহীন আদনান এর সঞ্চালনায় নগর সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন ইসলামী ছাত্র আন্দোলন বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ইমরান হুসাইন নূর ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ নারায়ণগঞ্জ মহানগর এর সভাপতি, জননেতা মুফতি মাসুম বিল্লাহ, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ নারায়ণগঞ্জ জেলার সভাপতি জননেতা মাওলানা দ্বীন ইসলাম, সেক্রেটারী, মুহাম্মাদ সুলতান মাহমুদ, ছাত্র ও যুব বিষয়ক সম্পাদক আব্দুর রহমান রোমান,শ্রমিক আন্দোলনের সভাপতি মুফতি হাবিবুল্লাহ হাবিব, ওলামা মাশায়েখ আইম্মা পরিষদের সভাপতি মাওলানা শাহ জালাল, কুরআন শিক্ষা বোর্ডের সভাপতি মাওলানা হাবিবুল্লাহ মিসবাহ,জাতীয় শিক্ষক ফোরামের সভাপতি গাজী আলতাফ স্যার, যুব আন্দোলনের সভাপতি হাফেজ মুহা.রবিউল ইসলাম, নগর ছাত্র আন্দোলনের সহ সভাপতি মুহাম্মদ ওমর ফারুক, সাংগঠনিক সম্পাদক মুহাম্মদ আবুল হাশেম, প্রশিক্ষণ সম্পাদক নোমান আহমদ, দাওয়াহ্ সম্পাদক গাজী তারেক হাসান,তথ্য গবেষণা ও প্রচার সম্পাদক এম জাহিদুল ইসলাম, প্রকাশনা ও দফতর সম্পাদক মুহাম্মদ মাহবুবুর রহমান, অর্থ ও কল্যান সম্পাদক মুহাম্মদ ইফতি আলম,কওমি মাদরাসা সম্পাদক মুহাম্মাদ আমির হামজা আলিয়া মাদরাসা সম্পাদক মুহাম্মদ মেহেদী হাসান, স্কুল ও কলেজ সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল সাঈদ, সাহিত্য ও সংস্কৃতি সম্পাদক মুহাম্মদ আনিসুর রহমান, কার্যনিবার্হী সদস্য মুহাম্মদ মনিরুল ইসলাম সহ থানার নেতৃবৃন্দ প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

RSS
Follow by Email