শুক্রবার, জুন ২১, ২০২৪
Led05সদর

সরকারের পদত্যাগ, নির্দলীয় তদারকি সরকারের দাবিতে মানববন্ধন

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: সন্ত্রাস দখলদারিত্বমুক্ত গণতান্ত্রিক ক্যাম্পাস সহ ৫ দফা দাবিতে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট’র মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়|

সেখান থেকে সরকার পদত্যাগ, নির্দলীয় তদারকি সরকারের অধীনে নির্বাচন; সাইবার নিরাপত্তা আইনসহ সকল নিবর্তনমূলক কালাকানুন বাতিল; শিক্ষা উপকরণসহ সকল নিত্য পণ্যের দাম কমাও; শিক্ষাঙ্গনে সন্ত্রাস- দখলদারিত্বমুক্ত গণতান্ত্রিক পরিবেশ নিশ্চিত কর; অবিলম্বে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছাত্র সংসদ নির্বাচন দাও।

পাঁচ দফা দাবিতে আজ ২৬ অক্টোবর, বৃহস্পতিবার দেশব্যাপী বিক্ষোভ সমাবেশ কর্মসূচীর অংশ হিসেবে নারায়ণগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সামনে আজ সকাল ১১ টায় সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট নারায়ণগঞ্জ জেলার উদ্যেগে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট নারায়ণগঞ্জ জেলার আহ্বায়ক সাইফুল ইসলামের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন, সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক নাসিমা আক্তার, সদস্য জিহাদ হোসাইন, তানজিলা আক্তার প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, “স্বৈরাচারী আওয়ামী লীগ সরকার জগদ্দল পাথরের মতো জনগণের বুকের উপর চেপে বসে আছে। একবার ভোটারবিহীন আরেকবার ভোটচুরির নির্বাচনের মধ্য দিয়ে ক্ষমতায় আসীন হয়ে মানুষের নূন্যতম গণতান্ত্রিক অধিকারকেও অবশিষ্ট রাখেনি তারা। একের পর এক কালাকানুনের মধ্য দিয়ে জনগণের গণতান্ত্রিক অধিকার খর্ব করে মানুষের গলা টিপে ধরার পাঁয়তারা অব্যাহত রেখেছে। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন প্রতিস্থাপিত হয়েছে সাইবার নিরাপত্তা আইন দ্বারা। লেখক মুশতাক, কার্টুনিস্ট কিশোর, সর্বশেষ জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী খাদিজা এই আইনের দ্বারা দমন-পীড়নের জলজ্যান্তউদাহরণ। নির্যাতন-নিপীড়নের এই চিত্র প্রমাণ করে এইসব কালাকানুন জনগণের নিরাপত্তার খাতিরে প্রনয়ণ করা হয়নি বরং ভিন্নমত দমন করে সরকারের নিরাপত্তা নিশ্চিতের স্বার্থেই ব্যবহৃত হয়ে আসছে। তেমনি ভাবে প্রত্যেকটি ক্যাম্পাসে চলছে সন্ত্রাস দখলদারিত্বের মহোৎসব। ক্যামপাসে ক্যামপাসে নির্যাতন আজকে নিত্যদিনের ঘটনায় পরিণত হয়েছে। নারায়নগঞ্জ এর বহুবছর ধরে সরকারি তোলারাম কলেজে হচ্ছেনা ছাত্র সংসদ নির্বাচন। নেই কোনো প্রশাসনিক হস্তক্ষেপ, অকার্যকর হয়ে আছে ছাত্র সংসদ। একই সাথে লাগামহীন ঘোড়ার মতো বৃদ্ধি পেতে থাকা
দ্রব্যমূল্যের প্রভাবে নাভিশ্বাস উঠেছে মানুষের জীবনে। সেই সাথে ক্রমাগত বেড়েই চলেছে শিক্ষা উপকরণের দাম। ফলে লাখো শিক্ষার্থীর শিক্ষাজীবন আজকে হুমকির মুখে। সমস্তশ্রেণি-পেশার মানুষ আজকে এই অসহনীয় পরিস্থিতি থেকে মুক্তি চাইছে।”

নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, অনতিবিলম্বে ফ্যাসিবাদী আওয়ামী সরকারের পদত্যাগ ও নির্দলীয় তদারকি সরকারের অধীনে নির্বাচন আয়োজনের দাবি জানিয়েছেন। একই সাথে সাইবার নিরাপত্তা আইন বাতিল, শিক্ষা উপকরণসহ সকল নিত্য পণ্যের দাম কমানো, শিক্ষাঙ্গনে সন্ত্রাস-দখলদারিত্বমুক্ত গণতান্ত্রিক পরিবেশ নিশ্চিত করা ও সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছাত্র সংসদ নির্বাচনের দাবি জানানো হয় মানববন্ধন থেকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

RSS
Follow by Email