রবিবার, মে ২৬, ২০২৪
জেলাজুড়েরাজনীতিসদর

সরকার সিন্ডিকেট ব্যবসায়ীদের আশীর্বাদে টিকে আছে: বাম জোট

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: ডামি নির্বাচনের দাবি জানিয়ে সেটা বাতিল করে সংখ্যানুপাতিক নির্বাচন পদ্ধতিতে তদারকি সরকারের অধীণে নির্বাচন, চালসহ নিত্যপণ্যের দাম কমানো, সিন্ডিকেট ভাঙ্গা, রেশনিং চালুর দাবিতে, বাম গণতান্ত্রিক জোটের দেশব্যাপী কর্মসূচির অংশ হিসাবে নারায়ণগঞ্জ জেলা শাখার উদ্যোগে বিক্ষোভ সমাবেশ করেছেন। শনিবার (২৭ জানুয়ারি) বিকাল ৪ টায় নারায়ণগঞ্জ কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে ওই বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

বাম গণতান্ত্রিক জোট নারায়ণগঞ্জ জেলার সমন্বয়ক হাফিজুল ইসলামের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির নারায়ণগঞ্জ জেলার সাধারণ সম্পাদক শিবনাথ চক্রবর্ত্তী. বাসদ নারায়ণগঞ্জ জেলার সদস্যসচিব আবু নাঈম খান বিপ্লব, বাসদ নেতা সেলিম মাহমুদ, এস এম কাদির, সিপিবি নেতা দুলাল সাহা, শিশির চক্রবর্তী।

নেতৃবৃন্দ বলেন, ৭ জানুয়ারি আওয়ামী লীগ সরকার আরেকটি ভোটার বিহীন প্রহসনের নির্বাচন করেছে। জনগণ এই একতরফা নির্বাচন প্রত্যাখ্যান করেছে। নির্বাচন কমিশন ভোটের হার ৪১.৮% বললেও বাস্তবে ভোটের হার অনেক কম। কমিশন ৩ টায় বলেছে ২৬.৩৭%। ১ ঘণ্টায় কীভাবে এতো ভোট বাড়লো তা দেশবাসী দেখেছে। ভোটার উপস্থিতি খুবই নগন্য ছিল। বাস্তবে সরকারের পরিকল্পনা মতো কমিশন এই ভোট হার ঘোষণা করে।

নেতৃবৃন্দ আরও বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার ২০১৪ সালে বিনাভোটে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায়, ২০১৮ সালে নিশি ভোটে ক্ষমতায় এসেছে। ৭ জানুয়ারি ২০২৪ একতরফা আমি আর ‘ডামি’ নির্বাচন করে দেশের ইতিহাসে আর একটি কলঙ্ক স্থাপন করলো। বাংলাদেশের জনগণ অতীত অভিজ্ঞতা থেকে বুঝেছে দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হয় না। ফলে ২০২৪ এর এই ডামি নির্বাচন বাতিল করে সংখ্যানুপাতিক পদ্ধতিতে নির্দলীয় নিরপেক্ষ তদারকি সরকারের অধীনে নির্বাচন দিতে হবে।

নেতৃবৃন্দ বলেন, নির্বাচনের পরে প্রায় প্রত্যেকটি নিত্যপণ্যের দাম বেড়েছে। সরকার দাম বাড়ার জন্য দায়ী সিন্ডিকেট ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা নিতে পারে নাই। কারণ এই সরকার সিন্ডিকেট ব্যবসায়ী লুটপাটকারীদের আশীর্বাদে ক্ষমতায় টিকে আছে। সরকার ক্ষমতায় টিকে থাকার জন্য দুর্নীতিবাজ, টাকা পাচারকারী, ব্যাংক খেলাপিদের অবাধ লুণ্ঠনের ক্ষেত্র তৈরি করে দিয়েছে। এই লুটপাটের পাহারাদার সরকারকে ক্ষমতার থেকে নামানোর জন্য বাম গণতান্ত্রিক জোটের নেতৃত্বে সকল গণতান্ত্রিক শক্তিকে সাথে নিয়ে তীব্র আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। নেতৃবৃন্দ দেশের শ্রমজীবী ও নিম্নবিত্ত মানুষের জন্য রেশন চালু করার আহ্বান জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

RSS
Follow by Email